কসমেটিক্স আর মেক আপ বাক্স কি করে সুরক্ষিত রাখবেন ?

কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু বিশেষজ্ঞ ও সাংবাদিক ডাঃ অলোক প্যাটেল বলেছেন,এই সময় অসংখ্য  

 মহিলারা তাদের মেকআপ পণ্য ব্যবহার করা নিরাপদ কিনা বা বন্ধুদের সাথে ভাগ করে নেওয়ার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেছেন।

প্যাটেল বলেছিলেন, “আমি সবসময় করোনাভাইরাস সংক্রমণের মূল বিষয়গুলি সম্পর্কে চিন্তা করি। এটি আপনার স্কিনের , চোখের, নাক বা মুখের সংস্পর্শে এলে তা সারফেস লেভেলে  বাঁচতে পারে, বাতাসে বেঁচে থাকতে পারে এবং সংক্রমণযোগ্য হয়।” “প্রসাধনীগুলির সাথে যুক্ত ঝুঁকির কারণ হ’ল লোকেরা প্রায়শই তাদের হাত এবং চোখ, নাক এবং মুখের কাছে এগুলো ব্যাবহার করে । “

তবে প্লাস্টিক এবং কাচের বোতলের গুঁড়ো , ফাউন্ডেশন, লিপস্টিক এবং অন্যান্য প্রসাধনী প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি সম্পর্কে কী বলা যায়?

নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিনে প্রকাশিত ২০২০ সালের এপ্রিলের একটি গবেষণায় বলা হয়েছে যে করোনাভাইরাস ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত প্লাস্টিকের সারফেসে  বাস করতে পারে।

প্যাটেল বলেছিলেন, “আপনি যদি কেবলমাত্র আপনার নিজের মেক আপ  ব্যবহার করছেন, আপনি যতক্ষণ  নিয়মিত হাত ধোবেন ততক্ষণ নিয়মিত জীবাণুমুক্তকরণের সম্ভবত প্রয়োজন হবে না।” “যাদের করোনভাইরাস রোগের লক্ষণ রয়েছে বা ইতিবাচক পরীক্ষা করেছেন তাদের ক্ষেত্রে আপনার আশেপাশের কারও সাথে অবশ্যই মেকআপ ভাগ করা উচিত নয়, তবে মেক আপ কিট্স্  পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করা উচিত।” 

স্যানিটাইজার স্প্রে অথবা স্যানিটাইজার টিস্যুতে নিয়ে মেক আপের সব কিছু  পরিষ্কার করে সেই টিস্যু ফেলে হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে হাত ধুয়ে ব্যবহার করতে হবে আর ভুলেও নিজের মেক আপ কিতা কারুর সঙ্গে শেয়ার করবেন না ।

   ঋণ : টুডে ডট কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *