৩টি আশ্চর্য হোম এক্সটেরিওর ডিজাইন টিপস | |

৩টি আশ্চর্য হোম এক্সটেরিওর ডিজাইন টিপস

দুর্দান্ত আইডিয়া যে অতিথি অভ্যাগতরা মুগ্ধ হয়ে যাবে।

একথা স্বীকার করতেই হয় যেমন পোশাকের পারিপাট্য আর রুচিতে শিক্ষার,আভিজাত্যের পরিচয় পাওয়া যায় ঠিক তেমনই একটি বাড়ির এক্সটেরিওরির অর্থাৎ বহির্দৃশ্যের সৌন্দর্য্য তার ইন্টেরিয়র ডেকরের  শীলিত রুচির পরিচয় পাওয়া যায়।ঠিক সেইজন্যই বাড়ির এক্সটেরিয়রের বাহ্যিক ডিজাইনের চেহারার রুপান্তর এমন হয়ে ওঠে যে দেখে মন্ত্রমুগ্ধ হতে হয়।

এই ব্লগটি আপনাকে তিনটি দুর্দান্ত আইডিয়া দেবে যা আপনার বাড়িকে এমন সুন্দর করে তুলবে যে অতিথি অভ্যাগতরা মুগ্ধ হয়ে যাবে।

১)গার্ডেন -প্রশান্তি আর পরিতৃপ্তি।উঠোনে একটি ছোট বাগানের তৃপ্তি কে না চায়।সতেজ সবুজের ছোঁয়া নির্মল বাতাস,সবুজ ঘাসে মর্নিং,ইভিনিং ওয়াক আর অভিজাত বৈশিষ্ট আর নান্দনিকতার মিশেল।

এরজন্য সাকিউলেন্ট অথবা ড্রট রেসিস্টেন্ট প্ল্যান্ট অর্থাৎ যে গাছপালা বেশি জল ধরে রাখতে পারে আর ঘন পাতাওলা এমন গাছ বেছে নিতে হবে আপনার বাগানের জন্য।ভাবুন বৃষ্টিতে পাতার ওপর জলের ফোঁটা আর তার সোঁদা গন্ধের আবেশে নিজের বাড়িতেই ছুটির আনন্দ উপভোগ করবেন।

২)আলো আমার আলো -আপনার বাগানের জন্য আউটডোর লাইটসের সুচারু ব্যবহার খুব জরুরি,বাড়িতে ঢোকার সরু রাস্তা অথবা ফুটপাথের ধারে।এই আলো উষ্ণতা ছড়িয়ে অভ্যর্থনা জানায় আপনার অতিথিদের আর গোধূলির সময় অর্থাৎ ‘ঠিক সন্ধে নামার মুখে’ বেশ রোমান্টিক আমেজ আনে।

৩)আউটার ওয়াল সাজানো– বাগান সাজানোর পরএবার এক্সটেরিয়র ওয়াল ডিজাইনের পালা।একটু ঘুরে ফিরে দেখা যাক আমাদের ঘরবাড়ি।সুন্দর বাগান আর আলোর সাজ স্বত্বেও এক্সটেরিয়র ডিজাইন ভালো না হলে বাড়ি দেখতে বেশ অসম্পূর্ণ লাগে।

আমরা এক্সটেরিওর ক্ল্যাডিঙের অর্থাৎ বাইরের দেওয়ালের রূপটানের কথা বলছি যার মডার্ন ফিনিশের বর্ণচ্ছটায় আপনার বাড়ি এক্সক্লুসিভ সাজে সেজে উঠবে তাই আমাদের পছন্দ সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়া।

কারণ কি?

কারণ অত্যন্ত সহজ।অন্যান্য এক্সটেরিওর ক্ল্যাডিং সলিউশনের তুলনায় সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়া গুণপনায় আর সম্ভারে অনেক বেশি এগিয়ে।কিছু নিদর্শন-

১)ডাবল হার্ডেন্ড রেসিন এক্সটেরিওর -সাধারণ এক্সটেরিওর ল্যামিনেটসের তুলনায় সেঞ্চুরি এক্সটেরিওর ল্যামিনেটসে আছে হাই প্রেসার ক্ল্যাডিং যা ডাবল হার্ডেন্ড রেসিন দিয়ে তৈরী।যেহেতু এটি সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়ার অনন্য নিজ দক্ষতায় তৈরী তাই এর শক্তি অতুলনীয়।

২)রোদ ঝড় জলে অবিচল -এই ড্ৰাই ক্ল্যাডিং সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়া ল্যামিনেটস শুধু ময়েশ্চার প্রতিরোধে নয়,সূর্যের প্রখর ইউ ভি রেডিয়েশন যার প্রকোপে টেক্সচারকে কুঁচকে,দুমড়ে যাওয়ার অভিঘাত থেকে সুরক্ষিত রাখে এবং এছাড়া এটি সিপেজ প্রুফ অর্থাৎ জল চুঁইয়ে পড়া থেকেও রক্ষা করে দীর্ঘদিন মজবুত আর টেকসই থাকে।

৩)হাই কোয়ালিটি পেপার্স-ওয়াল ক্ল্যাডিঙের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত এই ডেকো পেপার ইউরোপ আর জাপান থেকে আসে তাই গুণমানে বিশ্ব সেরা।আক্ষেপের কথা বাজারে অনেক কোম্পানি সস্তার নিচুমানের রিসাইক্লড চাইনিজ ডেকো পেপার ব্যবহার করে যে কারণে সেই সব প্রডাক্ট খুবই ঠুনকো আর নিম্নমানের হয়।

সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়া জার্মানির অ্যাক্রিলিক শিট ব্যবহার করে খুব ভালো ভাবে কালার ফেডিং রোধ করে।এক্সটেরিয়র ক্ল্যাডিং সলিউশন্সের জন্য নির্দ্বিধায় বেছে নিন একমেবাদ্বিতীয়ম সেঞ্চুরি এক্সটেরিয়া।

https://www.centuryexteria.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *