রাখিব যতনে

আলমারি,ওয়াড্রবে সুতি, সিল্ক, নাইলন, বিভিন্ন ফ্যাব্রিকের যত্নের টিপস।

বহুদিন সযত্নে তুলে রাখা বেনারসি পরতে গিয়ে আতঙ্কে আবিষ্কার করলেন ভাঁজে ভাঁজে পেঁজা। এমন মন কেমন,মন খারাপ অভিজ্ঞতা আমাদের সবার। খুব কম ব্যবহার করা জামা কাপড় ঠিকঠাক  যত্নের অভাবে নষ্ট হয়ে যায় আর আমরা অনেক সময় জানতেই পারিনা ঠিক কিরকম যত্নের প্রয়োজন।

বিভিন্ন ফ্যাব্রিকের যত্নের টিপস :

সুতি

  • সুতির জামাকাপড়ে দাগ ময়লা লাগলে কখনও হট আয়রন ব্যবহার করবেন না,গরম জলে ধোবেন না।
  • রং উঠে যাওয়ার ঝুঁকি এড়াতে কাচার সময় উল্টো করে কাচুন।
  • চা,কফি,খাবারের দাগ লাগলে বসে যাওয়ার আগেই ব্লটিং পেপার দিয়ে পরিষ্কার করে পরে কেচে নিন।
  • সুতির জামা অনেকদিন ড্রয়ারে ফেলে রাখলে কুঁচকে যায় তাই আধশুকনো অবস্থায় তুলে হাওয়ায় শুকোতে দিন।

লিনেন

  • লিনেন মেন্টেন করা খুব সোজা। ঠান্ডা/গরম জলে লিনেন ধুয়ে নিন।
  • লিনেন পোশাকি ইস্ত্রি না করলেও চলে তাও বেটার লুকের জন্য আধশুকনো অবস্থায় ইস্ত্রি করে নিন।
  • সাদা লিনেন দু পিঠেই ইস্ত্রি করুন আর গাঢ় রঙের পোশাকে জামা উল্টো করে ইস্ত্রি করুন।
  • প্লাস্টিকের ব্যাগ থেকে বের করে শুকনো জায়গায় ন্যাপথলিন দিয়ে স্টোর করুন।

সিল্ক

  • সাধারণত ড্রাই  ক্লিন করা হয়। হালকা গরম জলে কাচলে সিল্কের কাপড়ে জেল্লা  আসে।কেনার সময় জেনে নেওয়া ভালো বাড়িতে কাচার উপযুক্ত কিনা।
  • কাচার সময় আধ বালতি জলে দু টেবিল চামচ হোয়াইট ভিনিগার মেশাতে পারেন। পোশাকে ঔজ্জ্বল্য আসবে।
  • সিল্কের জামাকাপড় ওয়াশিং মেশিনের ড্রয়ারে দেবেন না,সরাসরি রোদেও দেবেন না।,না নিংড়ে জল শুদ্ধ ছাওয়ায় মেলে রাখুন।

নাইলন,পলিয়েস্টার,লাইক্রা

  • এই ধরণের ফেব্রিক তাপ একদম সহ্য করতে পারে না। ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিন।
  • ইস্ত্রি করার সময় রেগুলেটর একদম মিনিমাম এ সেট করুন।
  • হাতে ধুয়ে নেওয়াই এই ধরণের ফ্যাব্রিকের জন্য আদর্শ আর ওয়াশিং মেশিনে ধুতে চাইলে লন্ড্রি ব্যাগের মধ্যে ঢুকিয়ে কাচুন।

মনে রাখুন:

  • প্লাস্টিক ব্যাগের ভেতর কখনও কোনো জামা কাপড় স্টোর করবেন না। প্লাস্টিক ব্যাগ এক্সসেস ময়েশ্চারাইজার আহরণ করে পোশক নষ্ট করে দেয়।
  • পোশাকের লেবেলে লেখা গাইডলাইন মেনেই জামা কাপড় কাচুন।
  • ওয়ার্ডরোবে,আলমারিতে যেখানে স্টোর করছেন সেই জায়গা পরিষ্কার করে ন্যাপথলিন দিয়ে রাখুন।
  • এক একটা ড্রেসের মাঝে টিস্যু পেপার বা প্লেন খবরের কাগজ রেখে রাখুন।
  • মাঝে মাঝে জামা কাপড় বের করে হাওয়া লাগান.অন্তত মাসে একবার।
  • ওয়্যার হ্যাঙার অ্যাভয়েড করুন।
  • ওয়ার্ডরোবে,আলমারিতে খুব ঠেসাঠেসি করে না রাখা বাঞ্ছনীয়।
  • লক্ষ্য রাখতে হবে অনেকদিন কম ব্যবহার করা পোশাকে যেন বেশি ভাঁজ না পড়ে।
  • তিন মাসে একবার সব পোশাক বের করে ভাঁজ খুলে রিফোল্ডিং করুন।     

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *