ওয়ার্ক ফ্রম হোম বিউটি,ফিটনেস এক্সপার্ট টিপস

ওয়ার্ক ফ্রম হোমে ১০ টি অবর্থ্য বিউটি,ফিটনেস,সাইকোলজিস্ট এক্সপার্ট টিপস

ওয়ার্ক ফ্রম হোম অসহ্য হয়ে উঠেছে ?মনে হচ্ছে কবে অফিস খুলবে আর সব নর্মাল হয়ে যাবে?আবার কাজের ব্রেকে ক্যান্টিনে অথবা কাছের কফি শপে আড্ডা ?কুছ পরোয়া নেই ,ল’রিয়েল প্যারিস,আর সাইকোলজি,ফিটনেস এক্সপার্টদের এই ১০ টি টিপস আপনার বোরিং ওয়ার্ক ফ্রম হোমে দারুন কাজে দেবে আর আপনার মন ভাল হয়ে যাবে :

১)বেডে নয় অন্য একটা নির্দিষ্ট স্থানে WFH করুন :

সবচেয়ে প্রচলিত নিজের বিছানায় কোলবালিশ নিয়ে WFH কিন্তু এতে সমস্যা হল একটু পরেই ক্লান্তি এলে কোলবালিশ টেনে একটু ন্যাপ নেওয়ার,আর এটা শরীরের দিক থেকে খুব হেলদি নয়,পিঠে,ঘাড়ে, ব্যাথা হয়।বাড়ির যে কোনও জায়গায় করে নিন WFH স্পেস আর সেটাকে একটু নিজের রুচিমত সাজিয়ে নিন আর কাজ আর ঘুমিয়ে পড়াকে আলাদা রাখুন ।আর একটা খুব কাজের আইডিয়া হল এই WFH নিজের পছন্দ মত বদলে ফেলুন। আগে যদি সোফায় করতেন কিছুদিন বাদে অন্য জায়গা,কিচেন টেবিলে,ব্যালকনিতে ট্রাই করতে পারেন। একঘেয়েমি কেটে ফ্রেশ লাগবে।    

২) মাস্ক: যদি জুম কল না থাকে তাহলে এই সময়ে নানা রকম ফেসমাস্ক,হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। একসঙ্গে কাজও হল ,রূপচর্চাও হল।এখন ইনস্টাগ্রামে সবচেয়ে পপুলার হল শিটমাস্ক যার মধ্যে ফেসশপ,ইনিস্ফ্রি,নায়িকা,গার্নিয়ার,ল’রিয়াল,ল্যাকমে পন্ডস এর মধ্যে বেছে নিলেই হল।

৩) ফেস ম্যাসেজ : কাজের মাঝে একটু ব্রেকে ট্রাই করতে পারেন।ফেসিয়াল অয়েল দিয়ে জেড রোলার বা গুয়াশা দিয়ে ফেস ম্যাসেজ কাজের মধ্যে ফ্রেশনেস আনবে।

৪) নেল পলিশ :বাড়ির আর অফিসের কাজের মধ্যে নেল পলিশের সময় নেই ?কোনও চিন্তা নেই। কাজের মধ্যে আপনার পছন্দ মত ব্রাইট নেল পলিশ ট্রাই করুন।টাইপ করার মধ্যেই শুকিয়ে যাবে।ব্রাইট কালার আপনার মুড ভাল করে দেবে।

৫) ক্যান্ডেল জ্বালান :এখন নানা ধরণের দারুণ রঙের আর শেপের ক্যান্ডেল পাওয়া যায় যার অনেকগুলো সেন্টেড যেমন ফ্লরিন ডেকর,টি ট্রি।একটা সেন্টেড ক্যান্ডেল আপনার কাজের মুড ও পরিবেশ দারুণ ভাল করে দিতে পারে।

৬) হ্যান্ড ময়েশ্চরাইজ : রেগুলার সাবান দিয়ে আর স্যানিটাইজারে WFH করতে আপনার হাত শুকনো দেখাচ্ছে ?ল’রিয়েলের হ্যান্ড ময়েশ্চারাইজার হাতের কাছে রেখে কাজ করুন আর কাজের ফাঁকে ব্যবহার করুন।

৭) গেট ওয়েল ড্রেসড:ওয়ার্ক ফ্রম হোম মানেই ক্যাজুয়াল ঘরোয়া পোশাক কেন? একটু সেমি ফর্মাল সাজুন,চুল ভাল করে ব্রাশ করে,মাঝে মাঝে মাস্কারা ব্যবহার করুন দেখবেন নিজেকে অনেক ফ্রেশ লাগছে আর এটা হঠাৎ জরুরি জুম বা ভিডিও কলের জন্যেও খুব কাজের।

৮) ওভারনাইট ফেস মাস্ক : রোজ WFH করতে হলে ভাল ঘুম হওয়া জরুরি তাই রাতে বেশি ফোন না ঘেঁটে একটা ভালো ওভারনাইট ফেসমাস্ক ব্যবহার করুন আর সকালে উঠে নিজের ঝলমলে স্কিন দেখে নিজেরই খুব ভাল লাগবে।

৯) যোগা: টানা ৬/৭ ঘন্টা  WFH শরীরের পক্ষে খুব টায়ারিং তাই সকালে উঠে ২০ মিনিট নানা আসনে যোগাভ্যাস করলে আপনার শরীর তরতাজা থাকবে এবং WFH এর ধকল ও সামলে নেবে।

১০) কাজের মাঝে ব্রেক :এক দু ঘন্টার পর একটা ৪/৫ মিনিটের ব্রেক নিন এবং সেটা রেস্ট নেবার জন্য নয়।একটু পায়চারি,কিছুটা ফ্রি হ্যান্ড,কোমর বেন্ড এক্সসারসাইজ করে আবার কাজে বসলে আরাম পাবেন।

তথ্যসুত্রঃ ল’রিয়েল প্যারিস,সাইকলজিস্ট ডক্টর অ্যাডাম গ্যালিনিস্কি,ইয়োর ওয়েলনেস                                           

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *