৬টি চেনা- অচেনা উইকেন্ড স্পটের ঠিকানা | |

৬টি চেনা- অচেনা উইকেন্ড স্পটের ঠিকানা

মেঘবরন বন,উচ্ছল মূর্তি নদী,তাজা মাছ ভাজা ,ছৌ নাচ,পরিযায়ী পাখি,চাঁদে ভেজা বন….

গত ২ বছরের দুঃসহ অতিমারির আতঙ্ক,হতাশা,অসহ্য বন্দিজীবন থেকে মুক্তি পেতে ঘুরে আসুন এই আপাত অচেনা অজানা সবুজের সান্নিধ্যে,যেখানে মেঘবরন বন, উচ্ছল নদী, জঙ্গলে মর্মরধ্বনি, জ্যোৎস্নায় ধোওয়া বাগিচার মাঝে মন প্রাণ জুড়িয়ে নিন।

আদুরিয়া -মেঘবরন বন,শ্যামবরণ বসন।সেখানে আউশের বাতাস শীত কুয়াশার গুণ্ঠনে অথবা বসন্তের ফুলবাহারে উদার যৌবন।অরণ্যের সবুজ দ্বীপের নির্জনে বনকুঠি আদুরিয়া।তিন দিকে জঙ্গল।বাংলো সীমানায় ঘুরে ফিরে একটা দিন কেটে যাবে।পর দিন নিজের অথবা লোকাল গাড়ি নিয়ে আমজারুলিয়া সাওঁতালপাড়া।এর অদূরে কালিকাপুরে বর্ধমান দেওয়ানজির পাঁচ প্রাসাদকালের জীর্ণ প্রাসাদে নাকি এখনও কৃষ্ণপক্ষের মধ্যরাতে দেওয়ানজির পায়ের শব্দ পাওয়া যায়।

এসপ্ল্যানেড বাস ডিপো থেকে সিউড়ি বা বোলপুরের বসে ১১ মাইল স্টপে এসে রিকশা বা মোটর ভ্যানে আদুরিয়া বন বাংলো তিন কিমি।বুকিং-ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসার বর্ধমান।ফোন-০৩৪২ ২৬৫৭১৭২

ডুয়ার্স ট্যুর প্যাকেজ

পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন দপ্তরের নতুন ৪ রাত্রি ৫ দিনের দারুণ আকর্ষণীয় ডুয়ার্স প্যাকেজে জলদাপাড়া,রাজাভাতখাওয়া,তিলবাড়ি,মূর্তি,গজলডোবা ভ্রমণ।শিলিগুড়ি থেকে শুরু আর শিলিগুড়িতে ফেরা।তোর্সা নদীর ধারে অপরূপ জলদাপাড়া ন্যাশনাল পার্ক,মোহময়ী উচ্ছল মূর্তি নদী,বক্সা টাইগার রিজার্ভের গেটওয়ে রাজকীয় রাজাভাতখাওয়ার প্রকৃতির সান্নিধ্যে মন প্রাণ সতেজ করে তুলবে। বিশদে জানতে –

https://www.wbtdcl.com/package/package_detail?package_id=MTkx

গোপগড়

মেদিনীপুরের কাছে। সামনে কংসাবতী,পেছনে ঘন জঙ্গল,আদ্যন্ত আকাশ আর ঝিম নৈঃশব্দ।জঙ্গলে ঝরাপাতা আর বন বাতাসের মর্মরধ্বনি,শাল,সোনাঝুরি বকুলের সংসার,বনে মহুলের গন্ধ,মৌটুসি, তিতিরের ডাক।এর মাঝে জ্যোৎস্নায় ধোওয়া বাগিচা,চাঁদে ভেজা বন। গাড়িতে ঘুরে আসুন অদূরে ভাদুতলা,রানী শিরোমনির কর্ণগড়,মহামায়ার মন্দির। গোপগড় ইকো পার্ক বুকিং –  083370 66882।এছাড়া ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসার পূর্ব মেদিনীপুর।ফোন-03222-275869০। অশোক মান্না-8926184005

যমুনাদিঘি-ভালকিমাচান-বর্ধমানের কাছেই।দু ডজন পুকুর,লম্বা খাল,চারদিকে কৃষ্ণচূড়া,শালের জঙ্গল।শীতের সময় ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি আসে।পায়ে হেঁটে যত লোকালয়ের বাইরে তত এদের দেখা মিলবে।এখানকার বড় আকর্ষণ মাছ।এইসব পুকুরের তাজা রুই কাতলা,মৃগেলের তাজা মাছ ভাজা আর মাছের ঝোলের স্বর্গীয় স্বাদ মুখে লেগে থাকবে।এখান থেকে ঘন্টাখানেকের দূরত্বে ভালকিমাচান।বড় মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ।এখনও পুরোনোকালের শিকারের মাচান দেখা যায়।

থাকার জায়গা-আম্রপালি ট্যুরিস্ট কমপ্লেক্স।যোগাযোগ-বিকাশ ভবন,সেকেন্ড ফ্লোর,নর্থ ব্লক,সল্ট লেক অথবা অনলাইনে-https://wbsfdcltd.com/sfdctourism/online-booking.htm

শোনকুপি

পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডির লাগোয়া শোনকুপি গ্রাম।এখানে বেড়ানোর সবচেয়ে বড় আকর্ষণ নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের সঙ্গে পুরুলিয়ার শিল্প-সংস্কৃতি ও জীবনযাপনের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার আনন্দ। বানজারা ক্যাম্পের কাছেই চড়িদা গ্রাম।এখানকার ছৌ নাচ আর মুখোশ পৃথিবী বিখ্যাত।কাছের বলারামপুর লুপ্তপ্রায় গালার পুতুল শিল্পের গ্রাম।পাশের রাঙা গ্রামের প্রতিটি মাটির কুটিরের ভেতরে বাইরের দর্শণীয়  আল্পনার বাহার।এছাড়া প্যাকেজ ট্যুরে ঢাক কোচা ঝর্ণা,বামনী জলপ্রপাত,মুরাবুরু পাখি পাহাড়,অযোধ্যা পাহাড়ের আপার ও লোয়ার ড্যাম,স্থানীয় গাইড নিয়ে দাওরিনালা ট্রেকিং।

বুকিং-শোনকুপি বানজারা ক্যাম্প (১০ টি লাক্সারি ও ৬ টি ডর্মিটরি)।ফোন-৯২৩১৫ ৮১১৭৭,৯৮৩০০১১৭১৫    

আরও আকাশ-বোলপুর

মাটির টানে গ্রাম্য প্রকৃতির কোলে আরও আকাশ-বোলপুর অর্গানিক রিসোর্ট।চোখজুড়ানো সবুজ,বটের ছায়া,তাল,সোনাঝুরি গাছের মেলা।কুয়াশামাখা ভোরে রাঙামাটির পথে বিরাট ঝিল লক্ষীসায়রে অজস্র পরিযায়ী পাখির ভিড়।উইকেন্ডে খোয়াইয়ে শনিবারের হাট। কাছেই ইলামবাজারে হাইওয়ে সেতুর নিচে অজয় নদের অপরূপ দৃশ্য।বুকিং:aaroakash@gmail.com উদয় হাজরা-৯৮৩০১ ৮১৪৬২

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *