হাই গ্লস ল্যামিনেশন ইন্টেরিয়র গ্ল্যামার বাড়িয়ে ভাইরাস তাড়ায় ?

অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল, ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া নিকেশ,রিফ্লেক্টিভ প্রপার্টি,সহজ মেন্টেনেন্স…

নিজের বাড়ি সাজানোর জন্যে সার্ফেস মেটিরিয়াল পছন্দ আর নির্বাচনের ক্ষেত্রে অসংখ্য বিকল্পে বিভ্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে কারণ সঠিক সার্ফেস মেটিরিয়াল নির্বাচন করতে অনেকগুলি বিষয়ের ওপর নির্ভর করতে হয় এবং এই বিষয়ে আগে থেকে একটু খুঁটিয়ে জেনে বুঝে নিলে আখেরে লাভ হয়।বেশিরভাগ ক্রেতা এমন একটা কিছু কিনতে চান যেটা শুধুই চিত্তাকর্ষক নয়,সঙ্গে উপযোগী এবং কার্যকরী।হাই গ্লস ল্যামিনেটস এই সব শর্ত পূরণ করে।

বাড়ি ও অফিসে ইন্টেরিয়র ডিজাইন এবং ফার্নিচারের ক্ষেত্রে ল্যামিনেটস ব্যবহার করা হয় এর একাধিক সুবিধের কারণে।অভিজাত সুরুচিপূর্ণ ইন্টেরিয়রের জন্য হাই গ্লস ল্যামিনেটস টিপস –     . 

হাই গ্লস ল্যামিনেট সোচ্চারে বৈভব প্রকাশ করে -এর বৈশিষ্ট এমনই যাতে স্পেসকে অভিজাত, প্রাণচঞ্চল দেখানোর সঙ্গে মডার্ন আর মিনিমালিস্টিক ফিল এনে দেয়।এর বিপুল সম্ভারের মধ্যে থেকে  ডেকোর আর ইন্টেরিওরের জন্য আপনার রুচি অনুযায়ী পছন্দ করতে পারেন আর পাশাপাশি হাই শাইন সার্ফেসের অনেক ভ্যারিয়েশনও বেছে নিতে পারেন।

স্পেসকে বড় দেখায় -হাই গ্লস ল্যামিনেটসের রিফ্লেক্টিভ প্রপার্টির জন্য ঘরের স্পেসকে বড় দেখায় যেটা ছোট বাড়ি বা অ্যাপার্টমেন্টের জন্য খুব উপকারী।আপনি গ্লসি বিকল্প চাইলে ম্যাট সার্ফেস বদলে ফেলুন অথবা ইন্টেরিয়র আর বেডরুমে গ্লস ডেকোরেটিভ ল্যামিনেট লাগিয়ে স্পেশিয়াস ফিল গুড ফ্যাক্টর উপভোগ করুন।

সহজেই পরিষ্কার আর রক্ষণাবেক্ষণ- মসৃণতার কারণে এর ঝাড়পোঁছ এক সেকেন্ডে হয়ে যায়।শুধু একটি মাইক্রোফাইবার ক্লিনিং ক্লথেই যে কোনও দাগ আর লিকুইড স্পিলিং স্ট্রেনকে নিমেষে পরিষ্কার করে নেওয়া যায় উপরন্তু সার্ফেসের স্বাস্থ্য ভাল রাখে আর সহজ ইনস্টলেশনের সুবিধের জন্য জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থানে। কিচেন এবং বাথরুমে ব্যবহারের জন্য আদর্শ এই ল্যামিনেট কারণ খুব সহজে গ্রিজের,তেলের,অন্যান্য অবাঞ্ছিত দাগ পরিষ্কার করা যায়।শক্ত,টেকসই আর দামে সাশ্রয়ী বলে টেবিল,টিভি,স্টোরেজ ইউনিটে,ফলস সিলিং,ওয়াল প্যানেলিং.ল্যামিনেট ফ্লোরিং আরও অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহার অপরিসীম।শুধু খেয়াল রাখা বাথরুমে ব্যবহারের ক্ষেত্রে হাই কোয়ালিটির ল্যামিনেটস ব্যবহার করা শ্রেয়।                       

সমাপ্তি -গৃহসজ্জার,ফার্নিচারের রূপান্তর বা মেক- ওভার করতে হলে ভারতের শ্রেষ্ঠ ল্যামিনেটসই ব্যবহার করা উচিত। দামে সাশ্রয়ী,মজবুত,টেকসই,পোক্ত, দেখতে দারুণ,আর লাইট ওয়েট হওয়ায় এর ইনস্টলেশন আর ট্রান্সপোর্টেশনে কোনও ঝক্কি ঝামেলা নেই।ভাইরোকিল ল্যামিনেটসে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদানের জন্য ভাইরাস,ব্যাকটেরিয়া, মাইক্রোবস আর অন্য প্যাথোজেনকে নিমেষে নিকেশ করে আপনার বাড়িকে সুরক্ষিত আর পরিষ্কার রাখে।এমন একটা ব্র্যান্ড পছন্দ করা উচিত যার উন্নত কার্যকারিতা প্রশ্নাতীত এবং বর্ণোজ্জ্বল ল্যামিনেটস যা আপনার বাড়ির জন্য উপযুক্ত।শুধু আপনার বাড়ির পক্ষেই উপযুক্ত আর কার্যকরী নয় এর বর্ণিল বিভায় আপনার অতিথিরা বাড়ির দরজা খুলেই এর নবোদিত নান্দনিকতায় বিমোহিত,বিমুগ্ধ হয়ে যাবেন।      

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *