বর্ষবরণে বেপরোয়া হয়ে বাড়িতে করোনা ঝুঁকি ?

আসন্ন নিউ ইয়ার আর উইকেন্ডে বেপরোয়া ভিড়ের আশঙ্কায় সিডিসি,আইসিএমআর,ডাক্তারদের পরামর্শ।

গত দুর্গাপুজো ও কালীপুজোয় দৃষ্টান্তমূলক সংযমের পর ইদানিং বিশেষত খ্রিষ্টমাস উৎসবে লাগামছাড়া বেপরোয়া ভিড় দেখে আসন্ন বর্ষবরণের উৎসবে বিপুল ভিড়ে বিশাল করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির সিঁদুরে মেঘ দেখছেন ডাক্তার,স্বাস্থ্যকর্মী ও প্রশাসনের আধিকারিক বৃন্দ।ইকো পার্ক,চিড়িয়াখানা,পার্ক স্ট্রিটের বাঁধনহারা মাস্ক ছাড়া বিন্দাস জনগণ বুক ফুলিয়ে বলছে ‘করোনা চলে গেছে’।                 

সিডিসি,আইসিএমআর,হু সংক্রমণ বিশেষজ্ঞ ও ডাক্তাররা জানাচ্ছেন:

  • যেখানে করোনা টিকা সবে দেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে আর ব্রিটেনে নতুন করোনা স্ট্রেন নিয়ে নতুন করে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে সেক্ষেত্রে এখন এই বেপরোয়া আচরণ নতুন করে এক ধাক্কায় সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে আপনার বাড়ির বয়স্ক,শিশু এবং যারা আপাত ভাবে সুরক্ষিত ছিলেন তাদের সবার সংক্রমণের বিশাল ঝুঁকি চলে আসছে যা সামাল দেওয়া কঠিন হতে পারে।
  • এই সময়ে ভিড়ের মধ্যে যাওয়া অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ আর এই সময়ে এতদিনের সমস্ত সতর্কতা,সংযম বিসর্জন দেওয়ার কোনও কারণ ঘটেনি কারণ খবরে ও সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচিত,অপরিচিতদের মৃত্যুমিছিল অব্যাহত।সম্প্রতি নির্দেশক দেবীদাস ভট্টাচার্য্য,অভিনেতা জগন্নাথ গুহর মত আরও অনেকে চলে গেছেন।
  • এটা অত্যন্ত বিস্ময়কর যে হাইকোর্টের কঠোর নির্দেশ না থাকলে নিজের ও পরিবারের প্রাণের আশঙ্কা উড়িয়ে ফুর্তির প্রাণ গড়ের মাঠ হয়ে বেহিসেবী হয়ে ঘুরে বেড়ানোর দুঃসাহস।’কিস্যু হবে না’ এই গ্যারান্টি ওঁরা কোথায় পেলেন? 
  • যেখানে কাজের প্রয়োজন ছাড়া বেরোনো উচিত নয় সেখানে এই ভিড়ে মাস্ক ছাড়া,ফিজিক্যাল ডিস্ট্যানসিং শিকেয় তুলে ঘুরে বেড়ানো আত্মহত্যার সামিল।বেরোলে সবসময় মাস্ক পরে যতটা সম্ভব ভিড় এড়িয়ে চলাফেরা করতে হবে।একান্ত বেরোতে হলে কলকাতার আশেপাশে অনেক ফাঁকা মনোরম স্পট খুঁজে বেড়ানই ভাল।   
  • পাল্মনোলোজিস্ট রাজা ধরের মতে বর্তমানে সংক্রমণের হার আংশিক কমায় আর কিছু মানুষ সংক্রমিত হয়ে সেরে উঠে স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন দেখে হয়ত এই ভয়ঙ্কর আত্মবিশ্বাস আর বেপরোয়া ভাব।এখন এই ভিড়ে যে কোনও মুহূর্তে চূড়ান্ত বৃদ্ধি পেতে পারে এই করোনা সংক্রমণ তাই সবাইকে অত্যন্ত সাবধানে সতর্কতায় ও সংযমের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে,কোনোরকম ঢিলেঢালা ভীষণ ঝুঁকির হয়ে দাঁড়াবে।এখন এই ভাইরাস বেশ কিছুদিন থাকবে তাই মাস্ক আর ফিজিক্যাল ডিস্ট্যানসিং এখন স্বাভাবিক অভ্যাসের মত আমাদের ডেইলি লাইফস্টাইলের অঙ্গ হয়ে যাওয়া উচিত। 
  • বাইরে থেকে ফিরেই হাতমুখ ধুয়ে ভেপার নিতেই হবে।এখন অত্যন্ত সুলভে অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে।সঙ্গে স্যানিটাইজার অবশ্যই রাখতে হবে।    

খ্রিস্টমাসেই এই ভিড় দেখে আসন্ন নিউ ইয়ার আর সেই সংলগ্ন উইকেন্ডে এই ভিড় মারাত্মক ভাবে বাড়লে কি ভয়ঙ্কর অবস্থা হতে পারে সেই নিয়ে প্রশাসন,হাসপাতাল,স্বাস্থকর্মী,পুলিশ সবাই অত্যন্ত চিন্তিত ও উদ্বিগ্ন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *