কোভিড ১৯ ডায়াবেটিক ডায়েট প্ল্যান

প্রখ্যাত নিউট্রিশনিস্ট সুচরিতা সেনগুপ্ত,ডায়াটেশিয়ান ডঃ অরিত্রা খান,ডঃনিধি প্রকাশের ডায়াবেটিক ডায়েট প্ল্যান।

এই প্যানডেমিকে করোনা ছাড়াও আমাদের শরীর স্বাস্থ্য ভীষণ উদ্বেগে রেখেছে।একদিকে দীর্ঘদিন বাড়িতে থাকার ফলে বাড়ির খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে যেমন ভাল ঠিক তেমনি বাড়িতে দীর্ঘদিন থাকার জন্য স্ট্রেস আর কায়িক পরিশ্রম কম হওয়ার জন্য ডায়াবেটিক হয়ে যাওয়ার প্রবণতা বেড়ে গেছে।

রিসার্চে প্রকাশ ডায়াবেটিকদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা অন্যান্যদেড় চেয়ে বেশি এবং দেখা গেছে অনেক প্রো ডায়াবেটিক মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন এই করোনাকালে।

৫ টি ডায়াবেটিক ডায়েট  টিপস

১) সঠিক সময়ে খাওয়া : বাড়িতে একটানা থাকার জন্য খাওয়ার সময় অনিয়মিত হয়ে যায়।এই সময় একদম সঠিক সময় মেনে খাওয়া দাওয়া করতে হবে কারণ এতে ব্লাড সুগার রেগুলেশনে খুব সাহায্য করে যা শরীরের পক্ষে খুব উপকারী। ঘুম থেকে ওঠার ১ ঘন্টার মধ্যে খেতে হবে আর দিনে অন্তত ৩ বার যাকে মেজর মিল বলে তাই খেতে হবে। এর মাঝে দুবার স্ন্যাক্স খেতে হবে।

২) হোল গ্রেন ডায়েট :ডায়েটে যত বেশি হোল গ্রেন থাকবে তত ভাল।গমের রুটি, বাজরা, ডালিয়া, ওট্স ,সাবুদানা,ছাতু,কারণ এরা রক্তে কার্বোহাইড্রেটের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে যাতে এনার্জি লেভেল বেড়ে যায়। হোল গ্রেন ফাইবার রক্তে শর্করার প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করে এবং এর মিনারেলস শরীরের উপকারী।দুদিনের ডায়েটে একবার থাকলে ভালো হয়।

৩) প্রোটিনের উপযোগিতা: ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ নিউট্রিশনের হিসেবে একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের বডি ওয়েটের  0.8g/kg অনুপাতে প্রোটিন প্রয়োজনীয়/ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে লো কার্ব হাই প্রোটিন ডায়েট জরুরি।               

৪) ফ্যাট ওয়েলস,নাট্স,সিড্স: যাকে হেলথি ফ্যাট বলে যেমন অলিভ অয়েল,বাদাম তেল, রাইস ব্র্যান অয়েল ব্লাড সুগার আর ইন্সুলিন কন্ট্রোল ব্যালেন্সর জন্য খুব উপকারী।

৫) ফল আর শাকসব্জি: রোজকার মেনুতে অবশ্যই থাকতে হবে ফল আর শাকসব্জি।শুধু ফাইবারই নয় প্রচুর  ভিটামিন আর অ্যান্টি অক্সিডেন্টসের জন্য।

ডায়াবেটিক ডায়েট প্ল্যান

ব্রেকফাস্ট: (৩টি অপশন  )  

১)২ মাল্টিগ্রেন ব্রেড স্লাইস,১ ডিম (সেদ্ধ/পোচ/ স্ক্র্যাম্বল্ড/ ওমলেট), ১ গ্লাস দুধ

২)২ মাল্টিগ্রেন রুটি ,এক বড় বাটি ডাল,একবাটি চিনি ছাড়া দই।   

৩)২/৩ ইডলি /দোসা একবাটি সম্বর, একবাটি দই।

লাঞ্চ /ডিনার (৫ টি অপশন)

১) ২ আটার রুটি ,১ বড় বাটি রাজমা,১ পালংশাক তরকারি,১ বাটি দই

২) ১ ছোট বাটি সেদ্ধ ভাত, তরকারি, ১০০ গ্রাম পিসের মাছের ঝোল,দই  

৩)মাল্টিগ্রেন বার্গার, গ্রিল্ড পনির/চিকেন প্যাটি/লেটুস,শশা,টমেটো স্যালাড,১ গ্লাস কোল্ড কফি

৪)  ) ১ বাটি সেদ্ধ ভাত,বাঁধাকপির তরকারি, ১ বড় পিসের চিকেন কারি,পুদিনা চাটনি

৫)চিকেন বিরিয়ানী,মিক্সড ভেজ রায়তা, ১ বাটি সব্জি

স্ন্যাকস

মুড়ি,রোস্টেড বাদাম/ চিঁড়ের পোলাও/ বয়েল্ড কর্ন/গ্রিল্ড ভেজিটেবলস পিনাট বাটার দিয়ে,ক্রিম ক্র্যাকার,ডাইজেস্টিভ বিস্কিট,বাতাবী লেবু,সবেদা,আঙুর।   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *