এই ঠান্ডায় মাটন ভাটিন্ডা ট্রাই করেছেন ?

পাঞ্জাবে শতদ্রু নদীপাশের সেঁকা মশলা দেওয়া মাখা মাখা মাংসের ঐতিহ্যশালী সুস্বাদু জিভে জল রেসিপি।

শীতকাল এলেই জম্পেশ খাওয়াদাওয়ায় মন মেজাজ খুশ হয়ে যায়।শরীর গরমে এই ঠান্ডার আমেজে   মাটন ভাটিন্ডা ভোজনরসিকদের শরীর ও মন চাঙ্গা করে দেবে গ্যারান্টি।

উপকরণ:

মাটন:৬০০ গ্রাম (পেছনের রাঙ থেকে),টক দই-১০০ গ্রাম,(মাংসে মাখিয়ে রাখতে হবে),ধনে-২ চামচ,জিরে -১ চামচ,গোলমরিচ-১ চা চামচ,বড় এলাচ-৪/৫ টা (খোসা ছাড়ানো),৩ বড় পেঁয়াজ কুচি, আদা-রসুন পেস্ট -২ চামচ (বেশি স্বাদের জন্য রেডিমেডের চেয়ে  মিক্সিতে বেটে নিন),নুন-স্বাদ অনুযায়ী,সর্ষের তেল-৩০গ্রাম, (একটু কম বেশি স্বাদ অনুযায়ী),২টি তেজপাতা,২ বড় দারচিনির টুকরো,৫/৬ লবঙ্গ,শুকনো লঙ্কা বাটা-আধ চামচ,২ কাঁচালঙ্কা ভেঙে,হলুদ-আধ চামচ,৪/৫ ছোট এলাচ,ধনেপাতা কুচি। 

 প্রণালী

কড়া গরম করে ধনে,জিরে,তেজপাতা,দারচিনি,লবঙ্গ,বড়,ছোট এলাচ.গোলমরিচ ঢেলে গ্যাসে সিম করে রোস্ট করে বের করে মিক্সিতে বেটে নিয়ে সরিয়ে রাখুন।

এবার কড়াতে তেল গরম করে কাটা পেঁয়াজ,হাল্কা ব্রাউন ভেজে নিতে হবে।এর পর দই মাখানো মাংস দিয়ে একটু একটু জ্লছেড়া দিয়ে মিড সিমে কষতে হবে আর দেখতে হবে পেঁয়াজ যেন কালো না হয়।

এরপর আদা রসুন পেস্ট.শুকনো লঙ্কা বাটা,স্বাদ অনুযায়ী নুন দিয়ে প্রথমে ১ কাপ,পরে ১ কাপ জল দিয়ে ২০/২৫ মিনিট কষার পর আগের সরিয়ে রাখা মশলা,হলুদ,কাঁচালঙ্কা দিয়ে ১ কাপ জল দিয়ে সিমে ২০/২৫ মিনিট সিমে রেখে ঢাকা দিয়ে দিতে হবে,১০ মিনিট অন্তর ঢাকা খুলে ওপর নিচ নেড়ে গ্যাস বন্ধ করে ওপরে ধনেপাতা কুচি দিয়ে ১০ মিনিট রেখে পরিবেশন করুন।

এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন,একেবারে ট্র্যাডিশনাল মাটন ভাটিন্ডা রন্ধনশৈলী থেকে সহজ করে অল্প আলাদা হলেও এ স্বাদের ভাগ হবেনা।                       

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *