ডিপ্রেশনে ভুগছেন না তো সোনাক্ষী ?

সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন একটাই খবর সুশান্ত সিং রাজপুত ! সারাক্ষণ তাঁর মৃত্যু নিয়ে হয়ে চলেছে চুলচেরা বিশ্লষণ। তবে সুশান্তের মৃত্যুর কারণ অবসাদ। মানুষের মনে আজকাল নেগেটিভিটি একটু বেশি মাত্রায় ছড়িয়ে পড়ছে। সবার মধ্যে থেকেও মানুষ হয়ে পড়ছে একা। অবসাদ এসে চেপে ধরছে তাঁদের। শেষ পর্যন্ত মৃত্যুতেই মুক্তির পথ খুঁজে নিচ্ছে অনেকেই। বর্তমান যুব সমাজের মধ্যেও এই প্রবণতা অনেক বেশি । সামান্য কারণেই তাঁরা অবসাদগ্রস্থ হয়ে পড়ছে। লড়াই করার মানসিকতা হারিয়ে ফেলছে। তবে সুশান্তের মৃত্যুর পর সারাক্ষণ সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলে যেভাবে পোস্ট করে চলেছে তাঁকে নিয়ে। তাতেও তৈরি হতে পারে অবসাদ। কি কারণে মৃত্যু, কারা দায়ি, কেন অবসাদ হয়, এসব না হলেই ভাল হত, এমন হাজারো কিছু নিয়ে সকলেই লিখে চলেছেন। সেলেব থেকে সাধারণ মানুষ সামিল হয়েছেন এই তর্জায়। এছাড়াও সব সময় এমন কিছু পোস্ট হতে থাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা অনেক সময়েই হতে পারে অবসাদের কারণ। মনে খারাপ ভাবনার সঞ্চারও হতে পারে। এবার এসবের বিরুদ্ধে দাঁড়ালেন বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা।

সোনাক্ষী নিজের মধ্যে নেগেটিভিটি বা খারাপ চিন্তা বাড়তে দিতে চান না। তাঁর জন্য তিনি মনে করেন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকাই ভাল। এই ভাবনা থেকেই নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিলেন সোনাক্ষী সিনহা। এরপর ইনস্টাগ্রামে তিনি লিখলেন, “নেগেটিভিটি থেকে দূরে থাকতে হবে, মনকে শুদ্ধ রাখতে হবে। আজকাল আমরা বোধহয় সব থেকে বেশি নেগেটিভ হয়ে পড়ছি ট্যুইটারে। ট্যুইটার থেকেই বাড়ছে নেগেটিভিটি। তাই চলো আমি আমার ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট ডিঅ্যাক্টিভেট করলাম। বাই বন্ধুরা।” এই পোস্ট লিখে তিনি নিজের ট্যুইটার ডিলিট করেছেন। তবে এ থেকে অনেক প্রশ্ন উঠলেও তাতে থোড়াই কেয়ার করে সোনাক্ষী ট্যুইটার ছাড়লেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *