অনন্যা

আজকের পৃথিবীতে প্রাণের পুণ্যে ভরা এক মাটির কন্যার কথা।

৫ জুলাই ২০২১।আসানসোলের নিষিদ্ধপল্লী।রাতে সরগরম।হঠাৎ এক ঝাঁক গাড়ি।কিছু বুঝে ওঠার আগেই অকস্মাৎ অভিযান শুরু।এত পুলিশ ,ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট আর এক দীপ্তিময়ী অকুতোভয় মেয়ের নেতৃত্বে ৪ ঘণ্টা রেড করে উদ্ধার করা হল ২২ জন নাবালিকাকে।সঙ্গে ধৃত দালাল,গণিকালয়ের মালিক ও অন্যান্য ব্যক্তিরা।২২ জন নাবালিকার অতলান্ত অভিশপ্ত জীবন থেকে মুক্তি।

২৫ শে জুন ২০২১। সম্প্রতি ইয়াশ ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রামনগর ১ নম্বর ব্লকের তালগাছারি-২ গ্রাম পঞ্চায়েত এর খীরপাল গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত দুঃস্থ পরিবারের ছাত্র-ছাত্রীদের ১০০ টি স্কুল সামগ্রী ও ৫০টি স্টোভ, রামনগর -২ ব্লকের কালিন্দী গ্রাম পঞ্চায়েত এর দক্ষিণ পুরুসত্তমপুর অরকবনিয়া গ্রামে  ঘুর্নিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে অরোকবনিয়া গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত দু:স্থ পরিবারের ছাত্র-ছাত্রীদের সাহায্যে এগিয়ে আসা।  

২৪ জুন ১৯৯২।টালিগঞ্জ মেট্রো স্টেশনের সামনে সন্ধ্যারাতের নির্জনতার সুযোগে এক গৃহবধূকে লাঞ্ছনা ও অত্যাচার করছে ৪/৫ জন দুস্কৃতিকারী।এক অসহায় স্বামী বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত।ঠিক তখনই একটি জার্নালিস্ট মেয়ে রুখে দাঁড়াল ওই ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে।শুরু হল এক অবিস্মরণীয় অতুলনীয় মরণ-বাঁচনযুদ্ধ।প্রাণপণ লড়াইয়ে আহত,বিধ্বস্ত হয়েও জিতল সেই মেয়ে।যাকে নিয়ে সুচিত্রা ভট্টাচার্যর বিখ্যাত উপন্যাস অবলম্বনে ঋতুপর্ণ ঘোষের সার্থক ছায়াছবি ’দহন’ জিতে নিল তিনটি জাতীয় পুরস্কার।

ওপরের তিনটি ঘটনার মহিয়সী মহামায়া একই নারী।শ্রীমতি অনন্যা চক্রবর্তী।পশ্চিমবঙ্গ শিশু সুরক্ষা আয়োগের চেয়ারপার্সন।সাউথ পয়েন্ট স্কুল,যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়,ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউট,কলকাতা এবং দিল্লিতে সাংবাদিকতা,জাতীয় পুরস্কার পাওয়া বিভিন্ন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সমাদৃত তথ্যচিত্র নির্মাতা,প্রবাদ প্রতিম মহাশ্বেতা দেবীর সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রান্তিক মানুষদের জন্য কাজ করা,সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের মাস কমিউনিকেশনের সহ অধ্যাপনা এমন আরও অনেক গুণপনা এঁর মুকুটের মণিরত্ন।         

বাঙালি তথা ভারতে তথা বিশ্বে নারীর আপন অধিকার,সম্মানের যুদ্ধ পুরাণে গার্গী আর যাজ্ঞবল্ক্য প্রশ্নোত্তরের সময়কাল থেকে আবহমান ধরে চলে আসছে।নারী ও শিশু সুরক্ষার,অত্যাচার,অনাচার,অবিচারের অন্ধকারের উৎস হতে উৎসারিত আলো হয়ে গত ৩০ বছরে অকম্পিত, অক্লান্ত, অক্লিষ্ট,অচিন্তনীয় এই অসামান্য কাজ করে চলা অনন্যা আজকের পৃথিবীতে অন্যতম সমুজ্জল দৃষ্টান্তস্বরূপ।আপন আদর্শ আর সংকল্পে অবিচল, প্রতিকূলতার সঙ্গে প্রতিনিয়ত যুদ্ধে ইস্পাত কঠিন মানসিকতা আজকের সাধারণ বাঙালি জীবনে দুর্লভ ও দুষ্প্রাপ্য।       

জননী বসুন্ধরায় প্রাণের পুণ্যে ভরা এমন মানবকন্যার নামমাহাত্ম সার্থক।

ছবি ঋণ-ফেসবুক,নিউজইন্ডিয়া প্রেস,’দহন’চলচ্চিত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *